জয় দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু বাংলাদেশের

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুপার টুয়েলভে একটি জয় অনেক কাঙ্খিত ছিল বাংলাদেশের জন্য। অস্ট্রেলিয়াতে সেই জয় দিয়েই বিশ্বকাপ মিশন শুরু করল টাইগাররা। তাসকিন-হাসান মাহমুদের্ আগুনে বোলিংয়ে হোবার্টে সুপার টুয়েলভে নিজেদের প্রথম ম্যাচে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ৯ রানের জয় পেয়েছে সাকিব বাহিনী।

বাংলাদেশের ছুড়ে দেওয়া ১৪৫ রানের টার্গেটে ডাচদের ইনিংস থেমেছে ১৩৫ রান। সর্বোচ্চ ৬২ রান এসেছে অ্যাকারম্যানের ব্যাট থেকে। এদিন ডাচদের বিপক্ষে বল হাতে আগুন ঝরিয়েছেন তাসকিন আহমেদ ও হাসান মাহমুদ। তাসকিন চারটি ও হাসান মাহমুদ দুইটি উইকেট পেয়েছেন।

এর আগে টস জিতে বাংলাদেশকে ব্যাট করতে পাঠায় নেদারল্যান্ডস। ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪৪ রান সংগ্রহ করে টাইগাররা। সর্বোচ্চ ৩৮ রান করে আফিফ হোসেন ধ্রুব। শেষ দিকে ১২ বলে অপরাজিত ২০ রান করেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।

জয়ের জন্য ১৪৫ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই ২ উইকেট হারায় নেদারল্যান্ডস। বাংলাদেশের হয়ে বোলিং ওপেন করেন তাসকিন আহমেদ এবং বল করতে এসে প্রথম বলেই উইকেট নিলেন তিনি। ফিরিয়ে দেন ডাচ ওপেনার ভিক্রমজিত সিংকে। পরের বলেই তিনি ফিরিয়ে দিলেন বাস ডি লিডিকে। টানা দুই বলে দুই উইকেট হারিয়ে ডাচরা যেমন বিপদে পড়েছে, তেমনি হ্যাটট্রিকের সুযোগ তৈরি করেছেন তাসকিন আহমেদ। যদিও শেষ পর্যন্ত হ্যাটট্রিকটি আর হলো না তার।

তাসকিনের প্রথম বলেই স্লিপে ক্যাচ দেন ভিক্রমজিত সিং। একেবারে নিচ দিয়ে যাওয়া বলটির নিচে হাত রেখে ক্যাচ তালুবন্দী করেন ইয়াসির আলী রাব্বি। টিভি রিপ্লে দেখে এরপর ক্যাচে আউটের সিদ্ধান্ত দিতে হয়েছে আম্পায়ারকে। পরের বলটি ব্যাটের কানা ছুঁয়ে গিয়ে জমা পড়ে নুরুল হাসান সোহানের গ্লাভসে।

এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারালেও ডাচদের হয়ে লড়াই চালিয়ে যান অ্যাকারম্যান। কিন্তু সেই অ্যাকারম্যানও থামেন তাসকিনের শিকার হয়ে। তার পতনের সঙ্গেই হার নিশ্চিত হয়ে যায় ডাচদের।